দুদকের মামলায় মীর হেলাল কারাগারে

0
47

তিনি জানান, বিচারিক আদালত থেকে ৩ বছরের কারাদণ্ড হওয়া মীর হোলালের দণ্ড আপিল বিভাগ বহাল রাখায় তিনি আজ মঙ্গলবার আত্মসমর্পণ করে জামিনের আবেদন করেছিলেন। আদালত এ আবেদন নামঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন।

মামলার নথি থেকে জানা যায়, ২০০৭ সালের ৬ মার্চ অবৈধ সম্পদ অর্জন এবং সম্পদের তথ্য গোপনের অভিযোগে মীর নাসির ও তার ছেলে মীর হেলালের বিররুদ্ধে গুলশান থানায় মামলা দায়ের করে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)। মামলায় বিচার শেষে একই বছরের ৪ জুলাই ঢাকার ২ নম্বর বিশেষ জজ মীর নাসির উদ্দিনকে ১০ বছরের দণ্ড দেন। একইসঙ্গে ৫০ লাখ টাকা অর্থদণ্ড অনাদায়ে দুই বছরের দণ্ড দেন। আর তার ছেলে মীর হেলালকে তিন বছরের কারাদণ্ড এবং এক লাখ টাকার অর্থদণ্ড দেন। অর্থদণ্ড অনাদায়ে তার আরও এক মাসের দণ্ড দেন আদালত। ওই রায়ের বিরুদ্ধে বাবা ও ছেলে হাইকোর্টে পৃথক আপিল করেন। হাইকোর্ট ২০১০ সালের ১০ আগস্ট মীর নাসিরের এবং একই বছরের ২ আগস্ট মীর হেলালের সাজা বাতিল করে রায় দেন। হাইকোর্টের ওই রায় বাতিল চেয়ে আপিল আবেদন করে দুদক। ২০১৪ সালের ৪ জুলাই আপিল বিভাগ হাইকোর্টের রায় বাতিল করে হাইকোর্টকে পুনরায় আপিল শুনানির নির্দেশ দেন। পুনরায় আপিল শুনানি শেষে ২০১৯ সালের ১৯ নভেম্বর হাইকোর্ট বিচারিক আদালতের রায় বহাল রেখে রায় দেন। একই সঙ্গে রায় প্রদানকারী বিচারিক আদালতে রায় পৌছানোর তিন মাসের মধ্যে আসামিদের আত্মসমর্পণের নির্দেশ দেন। সূত্রঃ দৈনিক পূর্বকোন